এবার কলকাতায় ভাঙা হল শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মূর্তি ৷


এবার ত্রিপুরার ছা৷য়া খোদ কলকাতায় ৷ কলকাতায় ভাঙা হল শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মূর্তি ৷ যে শ্যামা প্রসাদ মুখোপাধ্যায় না থাকলে কলকাতা এমনকি পুরো বাংলাই হয়তো পাকিস্তানের অংশে পরিণত হতো কলকাতার বুকে ভাঙা হল সেই স্বাধীনতা সংগ্রামী ডক্টর শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মূর্তি ৷ ত্রিপুরায় দীর্ঘ ২৫ বছর পর পালা বদল ঘটেছে যার ফলে সেখানে জনরোষে  রাজ্যের প্রাক্তন শাসকদল সিপিএম ৷ বিভিন্ন জায়গায় উত্তেজিত জনতা সিপিএমের পার্টি অফিস ভাঙচুর করে এবং একটি লেনিন মূর্তি ভাঙচুর করে ৷ যার তীব্র প্রতিবাদ করেছিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় ৷ কিন্তু এবার সেই ত্রিপুরার ছায়াই দেখতে হল কলকাতা বাসীকে ৷

জানা যায় এদিন সাতসকালে ভাঙা হল টালিগঞ্জের শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মূর্তি ৷ শুধু তিনি মূর্তি ভাঙার আগে মূর্তির মুখে কালিও লাগানো হয় ৷ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে এখনো পর্যন্ত সাতজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ৷

জানা যায় এদিন সকালে ৬জন তরুণ ও এক তরুণীকে মূর্তি ভাঙতে দেখেন স্থানীয় মানুষ ৷ খবর পেয়েই পুলিশ এবং স্থানীয় তৃণমূল কর্মীরা ছুতে আসেন সেখানে ৷ পুলিশ এসেই ওই যুবক যুবতীদেরকে গ্রেফতার করেন ৷ জড়িতরা নিজেদেরকে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়া বলে দাবি করে ৷ তবে স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি এই যুবক যুবতীরা নকশাল পন্থী রেডিক্যাল সংগঠনের সদস্য ৷

তবে স্থানীয় তৃণমূল নেতারা এই ঘটনাকে জঘন্য বলে দাবি করেছেন ৷ তাদের দাবি মতাদর্শগত বিরোধ থাকতেই পারে কিন্তু কারো মূর্তি ভাঙা নিন্দনীয় ঘটনা ৷ গতকাল মমতা ব্যানার্জি বলেছিলেন সিপিএমের সাথে আমাদের মতাদর্শগত বিরোধ আছে কিন্তু আমরা তাদের কোন মনীষীদের মূর্তি ভাঙাকে কোন ভাবেই সমর্থন করি না ৷ কোন সরকাররের কাজ রাজ্যের উন্নয়ন করা কারো মূর্তি ভাঙা নয় ৷


Leave a Reply