ব্রিটিশ-ভারতীয় IS জঙ্গি জেহাদি জনকে গ্লোবাল টেররিস্টের তকমা দিল আমেরিকা


ভারতীয় বংশউদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক  সিদ্ধার্থ অর্থাৎ ধর্ম পরিবর্তন করে ইসলাম ধর্ম  গ্রহন করা  নাম আবুরুমায়েশ, এই আবুরুমায়েশকে আন্তর্জাতিক জঙ্গীর তকমা দিল ওয়াশিংটন। একই সাথে সে ও তার পরিবারের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল। এই জঙ্গি ও তার স্ত্রী সন্তানকে নিয়ে ২০১৪ সালে ইংল্যান্ড ছেড়ে সিরিয়ায় পাড়ি দেয়।
উল্লেখ্য ২০১৫ সালে আইএস অপহরন করেছিল নিহাদ বরকত নাম এক ইয়াজিদি তরুনীকে। এর পর সেই তরুনী সেখান থেকে মুক্তি পাওয়ার পর সে জানায় আবুরুমায়েশ নামে এক জঙ্গী তাকে অপহরন করেছিল। সেই সময় থেকে এই জঙ্গীর নাম সবার সামনে চলে আসে।

ওই তরুনীর মুখে শোনা যায় মোসলেতেই এই জঙ্গীর ঘাঁটি ছিল এবং তার অপর নাম ছিল ” নিউ জিহাদি জন”। ধীরে ধীরে তিনি আইএস এর অন্যতম প্রধান মুখ হয়ে ওঠে। আজ ওয়াসিংটন ডিসি  আবু রুমায়েশকে গ্লোবাল টেররিস্টের তকমা দিল।

উল্লেখ্য আল মুহাজিরিনের(ব্রিটিশ জঙ্গী সংগঠন) অন্যতম প্রধান কমান্ড ছিল সে। এর পর জঙ্গী নেতা মহঃ এম ওয়াজিরের মৃত্যুর পর সে  আইএস এর অন্যতম প্রধান কমান্ড হয় এবং সেই সময় থেকে আবুরুমায়েশ “নিউ জিহাদি জন” নামে পরিচিত হয়। বলা বাহুল্য ২০১৬  সালে আইএস একটি ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করে সেই ভিডিওতেও আবুরুমায়েশকে দেখা গিয়েছিল।

প্রসঙ্গত সিদ্ধার্থ ছিল একজন ভারতীয় হিন্দু কিন্তু ইংল্যান্ডে গিয়ে বসবাস কালে এই যুবক ইসলাম ধর্মে ধর্মান্তরিত হয় এবং পরে আইএস ভাবধারায় জড়িয়ে পড়ে এবং পরে ২০১৪ সালে স্ত্রী সহ সিরিয়া গিয়ে আইএসের একজন অন্যতম জঙ্গি হয়ে ওঠে৷ জঙ্গিদের মধ্যে সে এতটাই শক্তিশালী হয়ে ওঠে যে পরে তার নাম হয় জেহাদি জন ৷ এই জঙ্গিকেই আমেরিকা এবার গ্লোবাল টেরোরিস্ট এর তকমা দিল৷

 


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *