যুদ্ধ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করায় পাক সেনাকে মিষ্টি বিতরণ করল না বিএসএফ , মিষ্টি বিতরণ করা হল বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে।


গত বেশকিছু দিন ধরেই ক্রমান্বয়ে যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করেই চলেছে পাক সেনা।কখনো জঙ্গিদের সীমান্ত পার করে ভারতে ঢোকানোর জন্য আবার কখনো বিএসএফ এর উপর হিংসাত্বক মনোভাব নিয়ে মাঝে মাঝেই যুদ্ধবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে চলেছে পাকিস্তানি সেনা। আর সেকারণেই ভারতীয় সেনা এবার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তানকে এবার আর প্রজাতন্ত্র দিবসে মিষ্টি বিতরণ করা হবে না। কারন শত্রুকে অনেক বন্ধুত্বের আহ্বান করা হয়েছে কিন্তু তারা যে বন্ধুত্বের ভাষা বোঝে না তা বহুবার প্রমাণিত হয়েছে । আর সেকারণেই ভারতীয় সেনা সিদ্ধান্ত নিয়েছে রক্তের বদলা নেওয়া হবে রক্ত নিয়েই। শত্রুকে উচিত জবাব এভাবেই দেওয়া হবে।

অন্যদিকে বিএসএফ এদিন বাংলাদেশ সীমান্ত বাহিনী বাংলাদেশ বর্ডার গার্ডদের মিষ্টি বিতরণ করে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যেকার বন্ধুত্বের সম্পর্ক আরো মজবুত করল। এদিন ভারত বাংলাদেশের সীমান্তের বিভিন্ন চেকপোস্টে ভারতীয় সেনাবাহিনী বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে মিষ্টি বিতরণ করে ।

প্রসঙ্গত গত বেশ কিছুদিন ধরেই জম্মু কাশ্মীর সীমান্তে প্রবল উত্তেজনা বিরাজ করছে। সীমান্তে পাক সেনাবাহিনীর হামলায় একের পর এক সেনা জওয়ান ও স্থানীয় সাধারণ নাগরিকগণ নিহত ও আহত হয়েছে । আর সে কারণেই বিএসএফের তরফে জানানো হয় যতদিন পর্যন্ত পাকিস্তানি সেনা বিনা প্ররোচনায় হামলা চালানো বন্ধ না করবে ততদিন পর্যন্ত ওদের সাথে কোন ভাবেই বন্ধুত্বের সম্পর্ক দেখানো হবে না।
উল্লেখ্য প্রতিবছর বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে তোলার জন্য ভারতীয় সেনা প্রজাতন্ত্র দিবস এবং স্বাধীনতা দিবসে পাকিস্তানি সেনাকে মিষ্টি বিতরণ করে থাকে। কিন্তু পাকিস্তানি সেনা বারবার যুদ্ধ বিরতি লঙ্ঘন করার কারনে এবার সেই প্রথায় ছেদ পড়ল।

 


Leave a Reply