দিল্লি পুলিশ গ্রেফতার করলো ভারতীয় লাদেন কে৷


মোস্ট ওয়ান্টেড ইন্ডিয়ান মুজাহিদিন আতঙ্কবাদী আব্দুল সুভান কুরেশি প্রায় ১০বছর পর দিল্লী থেকে গ্রেফতার হল৷ তাকে দিল্লি পুলিশের স্পেসাল সেল  গোপন সূত্রে খবর পেয়ে দিল্লী থেকে গ্রেফতার করে৷ এই আতঙ্কবাদী এতটাই ভয়ানক যে তাকে ইন্ডিয়ান লাদেন নামেও ডাকা হয়৷


দিল্লি পুলিশ বলেন তাকে গ্রেফতার করার সময় ১২থেকে ১৩ রাউন্ড গুলি চালাতে হয়৷ দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেলের ডেপুটি পুলিশ কমিশনার পিএস খুশবা বলেন আমরা গোপন সূত্রে খবর পাই যে এই আতঙ্কবাদী দিল্লির গাজীপুরে আসছে সেই মত আমরা তৈরি হয়ে যাই  এবং তাকে যথা সময়ে পরিকল্পনা মাফিক গ্রেফতার করা হয়৷


প্রায় এক দশক নিখোঁজ থাকার পর দিল্লি পুলিশ গ্রেফতার করল  ২০০৮ সালে গুজরাত বিস্ফোরণকাণ্ডের মূল চক্রী এই জঙ্গিকে৷ এই ইন্ডিয়ান মুজাহিদিন জঙ্গি ২০০৮ সালে গুজরাত বিস্ফোরণের অন্যতম মাথা ছিল৷ ২০০৮ সালের ২৬ শে জুলাই পরপর একুশটি বোমা বিস্ফোরণে কেঁপে উঠেছিল গুজরাটের আমদাবাদ। তার পরের দিন থেকেই পুলিশ কুরেশির খোঁজে তল্লাশি শুরু করে৷ সেদিন গুজরাট পুলিশকে ইমেইল করে এই ঘটনার কথা স্বীকার করে এই জঙ্গি গোষ্ঠী৷ এরপর এই মেলের সূত্রধরে পুলিশ আব্দুল সুভানের নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে ৷ কিন্তু ঘটনার পর থেকেই নিখোঁজ ছিল সে তাই এতদিন  কেটে গেলেও গ্রেফতার করা যায়নি তাকে ৷ শুধু তাই নয় দিল্লি , ব্যাঙ্গালোর এবং ২০০৬ সালের মুম্বইয়ের লোকাল ট্রেনে বিস্ফোরণের সঙ্গে জড়িত থাকার সন্দেহে আগেই তাকে খুঁজছিল পুলিশ৷

বার্তা সংস্থা ANI সূত্রে জানা যায় নেপালে ভুয়ো পরিচয়ে দীর্ঘদিন বসবাস করছিল সে৷

জানা যায় বিভিন্ন ভাষায় স্বছন্দে কথা বলতে পারতো এই আতঙ্কবাদী আর সে কারণেই একাধিকবার হাতের নাগাল থেকে ফস্কে বেরিয়ে গিয়েছে সে৷ টেকনোলজিতে ও বোমা বানাতেও  খুব এক্সপার্ট ছিল সে৷ জানা যায় ১৯৭২ সালে জন্ম গ্রহণ করা এই জঙ্গী তথ্য প্রযুক্তিতে খুবই এক্সপার্ট ছিল আর সে কারণেই ব্যাঙ্গালোর এবং হায়দ্রাবাদের বিভিন্ন সফটওয়্যার কোম্পানিতে চাকরিও করেছে দীর্ঘদিন৷

 


Leave a Reply